০৬:৩৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

র‌্যাব সদস্য শামীমুজ্জামানের নেতৃত্বে স্বর্ণ ডাকাতি চেষ্টা, জনতার হাতে আটক ৫

র‌্যাব -১-এর গাজীপুর ট্রেনিং সেন্টারের ডিএডি মোহাম্মদ শামীমুজ্জামানের নেতৃত্বে মানিকগঞ্জের সিংগাইরে এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে পালিয়ে যাওয়ার সময় জনতার হাতে আটক হন র‌্যাব সদস্য মোহাম্মদ শামীমুজ্জামানসহ ভুয়া  র‌্যাব পরিচয়কারী আরো ৪ জন।  জনতার হাতে আটক হওয়া সদস্য সহ ৫ জনকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের  হাতে তুলে দিয়েছেন।

ঘটনাসূত্রে জানাযায়,১ জুন (শনিবার)  সকাল ৭ টার দিকে ঢাকা জেলার   দোহার উপজেলার জয়পাড়া বাজারের ‘নির্ঝর অলঙ্কার নিকেতন’-এর মালিক সুমন বৈদ্য ৯৫ ভরি স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে সিএনজি করে সিংগাইরের চারিগ্রাম বাজারে যাচ্ছিলেন। সঙ্গে এক ঘনিষ্ঠজন ও সিএনজিচালক ছিলেন। নবাবগঞ্জের নয়নশ্রী ইউনিয়নের ভুড়াখালি

এলাকা থেকে র‌্যাবের  স্টিকারযুক্ত একটি মাইক্রোবাস তাদের পিছু নেয়। সিএনজিটি আমতলা গ্রামে পৌঁছালে মাইক্রোবাস থেকে পাঁচ জন নেমে র‌্যাব সদস্য পরিচয় দিয়ে তাদের তিন জনকে গাড়িতে তুলে নেয়। এরপর তাদের চোখ-মুখ বেঁধে সুমনের স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নেয়। গাড়িটি আমতলা বাজার অতিক্রমের সময় যানজটে আটকা পড়ে। এ সময় গাড়ি থেকে চিৎকার দেন তারা। স্থানীয়রা ভেতরে তিন জনকে চোখ বাঁধা অবস্থায় দেখতে পেয়ে গাড়িটি ঘিরে ধরেন। পরিস্থিতি বুঝে একজন স্বর্ণ নিয়ে পালিয়ে যায়। বাকি পাঁচ জনকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে সকাল সাড়ে ১০টায় পুলিশে সোপর্দ করে জামশা বাজারের ব্যবসায়ীরা।

আটককৃতরা হলেন, ফরিদপুর সদরের রাধানগর এলাকার সিকান্দার মিয়ার ছেলে মো. শামীম, একই এলাকার আব্দুল মালেক শেখের ছেলে মিরাজুল শেখ (২৮), মেঘমাচি এলাকার সোলেমান মৃধার ছেলে সম্রাট (২৮), পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার পাটেশ্বর এলাকার মৃত ফরমান প্রামাণিকের ছেলে আমিজ উদ্দিন (৫০) ও সাভারের আশুলিয়ার খেজুরটেক এলাকার মৃত আব্দুর রহিম বক্সের ছেলে জানিব বক্স (৬২)। এ সময় তাদের সঙ্গে মোটরসাইকেলে থাকা সিদ্দিক নামে আরেক ব্যক্তি ছিনতাইকৃত স্বর্ণ নিয়ে পালিয়ে যায়।সিংগাইর থানার ওসি মো. জিয়ারুল ইসলাম জানান, শামীমুজ্জামান ভাড়া করা একটি মাইক্রোবাস ও ভাড়া করা লোকজন নিয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছেন। পুলিশ লুট হওয়া স্বর্ণালংকার উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়েছে।   এ বিষয়ে ব্যবসায়ী সুমন বৈদ্য বাদী হয়ে থানায়   র‌্যাব পরিচয়ে  ডাকাতির অপরাধে একটি মামলা দায়ের করেছেন । আসামীদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

,

Tag :
About Author Information

জনপ্রিয় সংবাদ

বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম কৃত্রিম লেক “মহামায়া লেক” ভ্রমন গাইড

র‌্যাব সদস্য শামীমুজ্জামানের নেতৃত্বে স্বর্ণ ডাকাতি চেষ্টা, জনতার হাতে আটক ৫

প্রকাশ: ০৬:৪০:৪০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২ জুন ২০২৪

র‌্যাব -১-এর গাজীপুর ট্রেনিং সেন্টারের ডিএডি মোহাম্মদ শামীমুজ্জামানের নেতৃত্বে মানিকগঞ্জের সিংগাইরে এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে পালিয়ে যাওয়ার সময় জনতার হাতে আটক হন র‌্যাব সদস্য মোহাম্মদ শামীমুজ্জামানসহ ভুয়া  র‌্যাব পরিচয়কারী আরো ৪ জন।  জনতার হাতে আটক হওয়া সদস্য সহ ৫ জনকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের  হাতে তুলে দিয়েছেন।

ঘটনাসূত্রে জানাযায়,১ জুন (শনিবার)  সকাল ৭ টার দিকে ঢাকা জেলার   দোহার উপজেলার জয়পাড়া বাজারের ‘নির্ঝর অলঙ্কার নিকেতন’-এর মালিক সুমন বৈদ্য ৯৫ ভরি স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে সিএনজি করে সিংগাইরের চারিগ্রাম বাজারে যাচ্ছিলেন। সঙ্গে এক ঘনিষ্ঠজন ও সিএনজিচালক ছিলেন। নবাবগঞ্জের নয়নশ্রী ইউনিয়নের ভুড়াখালি

এলাকা থেকে র‌্যাবের  স্টিকারযুক্ত একটি মাইক্রোবাস তাদের পিছু নেয়। সিএনজিটি আমতলা গ্রামে পৌঁছালে মাইক্রোবাস থেকে পাঁচ জন নেমে র‌্যাব সদস্য পরিচয় দিয়ে তাদের তিন জনকে গাড়িতে তুলে নেয়। এরপর তাদের চোখ-মুখ বেঁধে সুমনের স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নেয়। গাড়িটি আমতলা বাজার অতিক্রমের সময় যানজটে আটকা পড়ে। এ সময় গাড়ি থেকে চিৎকার দেন তারা। স্থানীয়রা ভেতরে তিন জনকে চোখ বাঁধা অবস্থায় দেখতে পেয়ে গাড়িটি ঘিরে ধরেন। পরিস্থিতি বুঝে একজন স্বর্ণ নিয়ে পালিয়ে যায়। বাকি পাঁচ জনকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে সকাল সাড়ে ১০টায় পুলিশে সোপর্দ করে জামশা বাজারের ব্যবসায়ীরা।

আটককৃতরা হলেন, ফরিদপুর সদরের রাধানগর এলাকার সিকান্দার মিয়ার ছেলে মো. শামীম, একই এলাকার আব্দুল মালেক শেখের ছেলে মিরাজুল শেখ (২৮), মেঘমাচি এলাকার সোলেমান মৃধার ছেলে সম্রাট (২৮), পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার পাটেশ্বর এলাকার মৃত ফরমান প্রামাণিকের ছেলে আমিজ উদ্দিন (৫০) ও সাভারের আশুলিয়ার খেজুরটেক এলাকার মৃত আব্দুর রহিম বক্সের ছেলে জানিব বক্স (৬২)। এ সময় তাদের সঙ্গে মোটরসাইকেলে থাকা সিদ্দিক নামে আরেক ব্যক্তি ছিনতাইকৃত স্বর্ণ নিয়ে পালিয়ে যায়।সিংগাইর থানার ওসি মো. জিয়ারুল ইসলাম জানান, শামীমুজ্জামান ভাড়া করা একটি মাইক্রোবাস ও ভাড়া করা লোকজন নিয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছেন। পুলিশ লুট হওয়া স্বর্ণালংকার উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়েছে।   এ বিষয়ে ব্যবসায়ী সুমন বৈদ্য বাদী হয়ে থানায়   র‌্যাব পরিচয়ে  ডাকাতির অপরাধে একটি মামলা দায়ের করেছেন । আসামীদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

,